করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ কী দ্বিতীয়বার হতে পারে?

করোনার ভ্যাকসিন

পৃথিবীর দৃশ্যপট বদলে দিয়েছে মহামারী করোনাভাইরাস। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে গোটা মানবজাতির মধ্যে। করোনাভাইরাসের কারণে সবখানে হাহাকার ধ্বনিত হচ্ছে। এর মধ্যেই নেট দুনিয়ায় একটি প্রশ্ন ঘুরে বেড়াচ্ছে দ্বিতীয়বার শরীরে করোনা সংক্রমণ হতে পারে কিনা?

বিস্তারিত...

করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু; জনমনে নানান প্রশ্ন

সারা দেশে করোনাভাইরাস উপসর্গ জ্বর, শ্বাসকষ্ট, সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত অনেকের মৃত্যু হয়েছে। এদের কারো শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ছিল কিনা তা নিশ্চিত নয় বলে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। তবে সতর্কাবস্থায় তাদের দাফন করা হয়েছে। এছাড়া পরীক্ষার জন্য লাশ থেকে স্যাম্পল গ্রহণ করে আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয়েছে বলে জানান স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

বিস্তারিত...

করোনার বিস্তার রোধে মানুষ পরামর্শ মানছে না কেন

শরীরে করোনাভাইরাস রয়েছে কিন্তু বুঝতে পারার মতো উপসর্গ দেখা দেয়নি বলে বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ অনেক দেশেই মানুষ ধর্মীয় অনুষ্ঠান, পার্ক, সমুদ্র সৈকত বা বিভিন্ন পর্যটন স্পটে জড়ো হচ্ছেন। তারা চুল কাটাতে, শেফ করতে বা চুলে রঙ করতে সেলুনে যাচ্ছেন, কেউ আবার বাড়িতে পার্টি দিচ্ছেন। তাদের কারণে একটি পুরো কমিউনিটি মারাত্মক ঝুঁকির মুখে পড়তে পারে।

বিস্তারিত...

যাদের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা প্রয়োজন

করোনাভাইরাস নিয়ে গোটা বিশ্ব পর্যদুস্ত। এখন পর্যন্ত এর কোন প্রতিষেধক বের না হওয়ায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকাই একমাত্র উপায়। যাদের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা প্রয়োজন তারা যদি বিসয়টি বুঝতে না পারে তবে এই মহামারী আমাদের জন্য আরো ভয়ংকর হয়ে উঠবে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে এই সচেতনতা খুবই দরকার। কেউ আক্রান্ত কিনা সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে হলে প্রয়োজন পরীক্ষা করার। কিন্তু সাধারণ সর্দি-কাশির মতো লক্ষণ দেখা দিলেই মানুষ বিচলিত হয়ে পড়ছেন। অল্পতেই আতংকিত না হয়ে জেনে নিন কাদের এই পরীক্ষা করা প্রয়োজন- গত দু সপ্তাহে বিদেশ থেকে এসেছেন এবং জ্বর, সর্দি-কাশি, শ্বাসকষ্টের মতো…

বিস্তারিত...

চীনে দ্বিতীয় প্রজন্মের করোনা সনাক্ত, উদ্বিগ্ন চিকিৎসকরা

বিপদ যেন পিছু ছাড়ছে না চীনসহ বিশ্ববাসীকে। ভয়ঙ্কর মহামারি করোনা ভাইরাসে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানকে পর্যদস্তু করার পর অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আনা হলেও দ্বিতীয় প্রজেন্মের আরো এক ধরনের করোনা ভাইরাস ধরা পড়েছে চীনে।এবার চীনের গুয়াংডং প্রদেশের রাজধানী গুয়াংজুতে দ্বিতীয় প্রজন্মের করোনাভাইরাস সনাক্ত করেছেন দেশটির করোনা বিশেষজ্ঞরা

বিস্তারিত...

করোনা প্রতিরোধে লেবু ব্যবহারের পরামর্শ চীনা গবেষকদের

করোনায় লেবু

উষ্ণ লেবুর নির্যাস পান করোনা ভাইরাসকে ধ্বংস করে ও ফ্লু নিরাময় করে। লেবুর রসে থাকা অ্যাসিড ও কার্বোঅক্সিলিক অ্যাসিড উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। এছাড়াও লেবুর রস সরু ধমনীগুলোকে সুরক্ষা করাসহ রক্ত জমাট বাঁধা হ্রাস করতে পারে।

বিস্তারিত...

মাত্র ১৫ মিনিটে ৩৫০ টাকায় করোনা শনাক্ত সম্ভব !

ড. বিজন ও তার দলের উদ্ভাবিত পদ্ধতিতে ৩৫০ টাকায় ১৫ মিনিটে করোনা শনাক্ত সম্ভব। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত পদ্ধতিতে মাত্র ৫ থেকে ১৫ মিনিটের মধ্যে শনাক্ত করা যাবে করোনা সংক্রমণ হয়েছে কি না। এতে খরচ পড়বে ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকার মতো। সরকার যদি এর ওপর ট্যাক্স-ভ্যাট আরোপ না করে তাহলে ২০০ থেকে ২৫০ টাকায় বাজারজাত করতে পারবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। তবে সবকিছু নির্ভর করছে সরকারের মর্জির ওপরে। মূল্য নির্ধারণ না করে দিলে যে যার যার মতো টাকা নেবে।

বিস্তারিত...

করোনার ডজনখানেক ভ্যাকসিন পাইপলাইনে

করোনার ভ্যাকসিন

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের (এনআইএইচ) এর পক্ষে জানানো হয়, এ ভ্যাকসিন সত্যিই কাজ করবে কিনা ও এটি কতোটা নিরাপদ তা যাচাইয়ে মানবদেহে কয়েক ধাপের পরীক্ষার কেবল শুরু এটি।
এনআইএইচ উদ্ভাবিত এ ভ্যাকসিনের নাম দেওয়া হয়েছে এমআরএনএ-১২৭৩ (mRNA-1273)। ব্যাপকভাবে ব্যবহারের জন্য ১২ থেকে ১৮ মাস অপেক্ষা করতে হবে।

বিস্তারিত...

বিশ্বের শীর্ষ ৯ ধনীকে গরীব বানালো করোনা ভাইরাস !

করোনা ভাইরাসের ভয়াবহ প্রকোপ বিশ্ববাসীর মধ্যে উদ্বেগ তৈরি করেই চলছে। বৈশ্বিক পরিস্থিতি ও স্টক মার্কেটের দরপতনের কারণে শীর্ষ ধনীদের সম্পদের হেরফের ঘটে থাকে। তাদের সম্পদ ও বিনিয়োগের পরিমাণ এত বেশি যে সূচকের সামান্য ওঠানামাই বড় পরিমাণ সম্পদের ক্ষয়-বৃদ্ধি ঘটায়। করোনাভাইরাসের প্রভাবেও সেটিই ঘটেছে। তবে, এটি নিকট অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে অনেক বেশি। এই পরিস্থিতি অবশ্য একেবারেই নতুন-তা বলা যাবে না ব্ল্যাক মানডে: ১৯৮৭ সালের ১৯ অক্টোবর ভয়াবহ এক ধসের মুখে পড়ে বৈশ্বিক পুঁজিবাজার। বিশ্বের বড় শেয়ারবাজারগুলোতেও সেদিন ধস নামে। সেই কথাই স্মরণ করে দিয়েছে বিশ্বের নামকরা সাময়িকী ফোর্বেস। ওইদিন সোমবার…

বিস্তারিত...

করোনাভাইরাসের অধিক মৃত্যু ঝুঁকিতে ধূমপায়ীরা

করোনা ভাইরাস নিয়ে বিশ্বজুড়ে যখন তোলপাড় চলছে ঠিক সেই মূহুর্তে ধূমপায়ীদের সতর্ক করে দিয়েছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, মানুষের ফুসফুসের কার্যক্ষমতা নষ্ট করে দেয় ধূমপান। করোনা ভাইরাস ফুসফুসে আক্রমণ করলে মুত্যু ঝুঁকি বেড়ে যায়। তাই ফুসফুসের কার্যকারিতা ধরে রাখতে ধূমপান ত্যাগের  পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। গবেষণা বলছে, ইতোপূর্বে যতগুলো ভাইরাস গোটা বিশ্বে আঘাত হেনেছে তার মধ্যে বেশির ভাগ ভাইরাসেই বয়স্করা আক্রান্ত হয়েছেন তুলনামূলক বেশি। এ নিয়ে গবেষণায় কোন সমাধান না এলেও বিশেষজ্ঞরা ধূমপান ও দূষণের কারণে যুবকদের তরতাজা ফুসফুস এখনও সক্ষমতা হারায়নি বলে ধারণা করছেন। বায়ো সিকিউরিটি বিভাগের বিশ্লেষণ: অস্ট্রেলিয়ার…

বিস্তারিত...