বিশ্বে শতবর্ষী মানুষের দেশের শীর্ষে জাপান 

সাদিয়া জাহান হুমাইরা: জাপানে ১০০ বা তার চেয়ে বেশি বয়সী মানুষের সংখ্যা প্রথমবারের মতো ৮০,০০০ ছাড়িয়ে গেছে। আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর দেশ হওয়া সত্ত্বেও জাপানের মানুষরা তাদের চিরাচরিত জীবন ধারণ করে বলে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি শতবর্ষী মানুষের সংখ্যায় শীর্ষে জাপান। সম্প্রতি সরকারী এক তথ্য বিবরণীর বরাত দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে জাপান টাইমস। জাপানের স্বাস্থ্য, শ্রম ও কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে, শতবর্ষী মানুষের সংখ্যা গত বছরের তুলনায় ৯,১৭৬ বেড়ে ৮০,৪৫০ এ দাঁড়িয়েছে। দেশটিতে যে শতবর্ষী মানুষের সংখ্যা বেড়েছে তার মধ্যে নারীর সংখ্যা ৮৮.২ শতাংশ। বাকি সংখ্যা পুরুষ। শতবর্ষী মানুষের মধ্যে গত বছরের…

বিস্তারিত...

বিশ্বের বৃহত্তম টুনা মার্কেট টুয়োসু‌র হালচাল

সামুদ্রিক মাছের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয়়় মাছ হচ্ছেে না টুনা মাছ। সমুদ্রে সৈকতে চলাচল করেন এমন মানুষ নেই যে টুনা মাছের স্বাদ সম্পর্কেেে জানেন না।বিশ্বের বৃহত্তম টুনা মাছের মার্কেট জাপানে অবস্থিত। দেশটির রাজধানী টোকিওর টয়োসু মাছের বাজারটি টুনা মাছ সরবরাহের জন্য জগত বিখ্যাত।

বিস্তারিত...

মানসিক চাপ অনুভব করছে ৮০ % জাপানি

বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনৈতিক দেশ জাপান। শান্তি ও বিনয়ী দেশ হিসেবে সারা বিশ্বে জাপানের সুনাম রয়েছে। সেই জাপানের নাগরিকরাও মানসিক চাপে রয়েছে বলে সম্প্রতি এক সমীক্ষায় ওঠে এসেছে। করোনা মহামারীর ফলে দেশটির প্রায় ৮০ শতাংশ লোক মানসিক চাপ অনুভব করছে বলে জাপানের সুুকুবা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালিত এক গবেষণা সমীক্ষায় বলা হয়েছে। সমীক্ষায় জাপানের নাগরিক ও তাদের পরিবারের সদস্যদের করোনা ভাইরাসে সংক্রামণ , মহামারীতে ঘরে থাকার কারণে প্রতিদিনের জীবনযাপনে বাধা সৃষ্টির কথা সমীক্ষায় তুলে ধরা হয়েছে বলে জানায় গবেষকরা। সম্প্রতি অনলাইন এ সমীক্ষাটি চালানো হয়। সমীক্ষায় জাপানের প্রায় ৭, ০০০ নাগরিকের প্রতিক্রিয়া…

বিস্তারিত...

নিরাপত্তায় তার জালির ব্যবহার

মারিয়াম জাহান: ঘরে ভয় চোরের, ফসলে ভয় হাঁস, মুরগী, পশু-পাখির। আমাদের দেশে বাড়ির নিরাপত্তা কিংবা ফসলাদির নিরাপত্তার স্বার্থে নানা রকম বেড়া কিংবা ইটের দেয়াল ব্যবহার করা হয়। ফসলের নিরাপত্তায় কারেন্ট জাল ব্যবহার হলেও বাড়ির নিরাপত্তায় সাধারণত ব্যবহার হয়ে থাকে ইটের দেয়াল কিংবা বাঁশের ও টিনের বেড়া। তবে দীর্ঘস্থায়ী ও তুলনামূলক দাম কম হওয়ায় হালে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে তারজালির ব্যবহার। নিরাপত্তার স্বার্থে বা নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখতে তারজালি খুবই জনপ্রিয়। স্বল্প মূল্য হওয়ায় বাঁশের বদলে তারজালি ব্যবহার করে। জং ধরে না। স্থায়ীত্বও প্রায় ২০ বছর। তবে ২০ বছরের পর রং জ্বলে…

বিস্তারিত...

ক্যামব্রিজের বুকে পরিবেশবান্ধব মসজিদ

মোহাম্মদ রবিউল্লাহ: দীর্ঘদিন ধরে মসজিদের অভাব বোধ করে আসছে যুক্তরাজ্যের প্রাচীন শহর ক্যামব্রিজের মুসলিমরা। আশির দশকে ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় যে কজন গ্র্যাজুয়েট পাশ করে বের হয়েছেন তার মধ্যে নামাজ আদায় করার সুযোগ পেয়েছেন মাত্র ৪৫ জন। নামাজের জায়গার অভাবে এক সাথে ৪৫ জনের বেশি মুসলিম নামাজ আদায় করতে পারেনি। সেই ক্যামব্রিজেই কেবল যুক্তরাজ্যের নয় গোটা ইউরোপের প্রথম পরিবেশ বান্ধব মসজিদ নির্মিত হয়েছে। মসজিদটির নাম ‘ক্যামব্রিজ ইকো মসজিদ। ২৩ মিলিয়ন ব্রিটিশ পাউন্ড ব্যয়ে নির্মিত হয়েছে মসজিদটি। এক হাজার মুসুল্লি এক সাথে নামাজ আদায় করতে পারেন। এটি কেবল মসজিদটির অভ্যন্তরে আর বাইরেসহ মোট…

বিস্তারিত...

বিশ্বের সবচেয়ে দামি চাল কেন ‘কিনমেমাই প্রিমিয়াম’ ?

ইসরাত জাহান পুষ্পিতা: বিশ্বের জনপ্রিয় খাবারগুলোর একটি হচ্ছে চাল। বিশ্বের ৩৫০ কোটির বেশি মানুষের নিত্যদিনের আহার সিদ্ধ চাল। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে বিশ্বের সবচেয়ে দামি চালের তালিকায় নাম লেখা রয়েছে কিনমেমাই প্রিমিয়াম চালের। চালটির জন্মস্থান জাপান। কিনমেমাই প্রিমিয়ামের প্রতি কেজি কিনতে খরচ করতে হয় ১০৯ ডলার বা প্রায় সাড়ে নয় হাজার টাকা! জাপানের বিখ্যাত খাদ্যশস্য কোম্পানি টয়ো রাইস করপোরেশনের হাত ধরে কিনমেমাই প্রিমিয়াম বাজারে এসেছে। ২০১৬ সালের ৩০ জুন বিশ্বের সর্বোচ্চ দামে বিক্রীত চালের খেতাব পায় খাদ্যপণ্যটি। ২০১৫ সালে ইন্টারন্যাশনাল কনটেস্ট অন রাইস ইভলিউশনে চালটি ‘বিশ্বের সবচেয়ে উৎকৃষ্ট চাল’ হিসেবে স্বর্ণপদক…

বিস্তারিত...

খাবারের টেবিলে আবার মিলছে হারানো সব দেশী মাছ

রুকাইয়া জাহান মিম: বাংলাদেশ নদীমাতৃক দেশ হওয়ায় দেশে প্রচুর পরিমাণ ছোট মাছ পাওয়া যায় এসব মাছে আছে প্রচুর পুষ্টি প্রতিবেলায় ভাতের সাথে মাছ কাকে বলে মাছে ভাতে বাঙ্গালী বলা হয়। তবে বিগত কয়েক দশকে জনসংখ্যা বৃদ্ধি, মুক্ত জলাশয় ভরাট, সেচ দিয়ে মাছ আহরণসহ কৃষিকাজে কীটনাশকের যথেচ্ছ ব্যবহারের ফলে বিলুপ্তির পথে প্রাকৃতিক জলাশয়ের ছোট প্রজাতির অনেক মাছ । বিলুপ্তির পথে দেশীয় মাছগুলো হলো-মলা, ডেলা, পুঁটি, কাচকি, বাইম, চান্দা, পাবদা, গুলশা, টেংরা বৈরালি, রাজপুঁটি, খলিশা, ভাগনা, কৈ, শিং, মাগুর, গুজি, আইড়, ফলি, মহাশোল, বালাচাটা ও গুতুম। বিলুপ্প্রায় সব মাছকে বাঙালীর খাবারের টেবিলে…

বিস্তারিত...

থাই গ্লাসের বর্ণিল ব্যবহার

থাই গ্লাস

সাদিয়া সরকার: এক সময় বসবাসের জন্য মানুষ মাটির ঘর ব্যবহার করতো। এরপর টিন ও কাঠের ঘরে বসবাস শুরু করে। তারও পরে ইট সুড়কি বা ইট সিমেন্টের তৈরি বাড়িতে বসবাস শুরু করে মানুষ। আলো বাতাসের জন্য বসত বাড়িতে প্রথমে কাঠের তৈরি দরজা-জানালার ব্যবহার শুরু হয়। এরপর আসে স্টিলের তৈরি দরজা-জানালা। ধীরে ধীরে মানুষ সৌখিন হতে থাকে। এর পর বাসা বাড়িতে বা ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের দরজা ও জানালায় গ্লাসের ব্যবহার শুরু করে। আধুনিক মানুষরা আজকাল গ্লাসের টি-টেবিল থেকে শুরু করে রিসেপশন টেবিল, কনফারেন্স টেবিল, ডাইনিং টেবিল, গ্লাসের সেন্টার টেবিল এমন কি অফিসের ওয়ার্ক…

বিস্তারিত...

ভারত চীনকে ছাপিয়ে এশিয়ার ইকোনোমিক টাইগার বাংলাদেশ!

জাইমা ইসলাম নিধি: চীনের সাম্প্রতিক উত্থান ও উদীয়মান অর্থনীতি কারণে বর্তমানে দেশটি নতুন পরাশক্তিতে রুপান্তরিত হয়েছে। সস্তায় শ্রম ও কম দামের কাঁচামাল নিয়ে ধীরে ধীরে বৈশ্বিক বাজারের দখল নিয়ে নিচ্ছে চীন। এছাড়াও বিপুল পরিমাণ বিনিয়োগ চীনকে দারিদ্র্যমুক্ত ও অর্থনীতি গতিময় করতে সহায়তা করছে। প্রসংগ বাংলাদেশ:  এবার বাংলাদেশের দিকে আসা যাক। এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে অনেকটা নীরবেই অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এশিয়ার কোনো দেশ যে প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে পারেনি তা অর্জন করেছে বাংলাদেশ। দেশটির বর্তমান প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশ। এটি রুপ কথা নয় বাস্তব চিত্র। চীন, ভারত ও অন্যান্য দক্ষিণ এশীয় ইকোনমিক টাইগারদের…

বিস্তারিত...

ঘাসের ওপর বসবাসের অনুভূতি দেয় ঘাস কার্পেট

ঘাস কার্পেট

বাসার ভেতর বিস্তৃত ঘাসের মাঠ। চোখ জুড়ানো সবুজায়ন। পায়ের স্পর্শেও ঘাসের ছোঁয়া। ভাবুন তো অনুভূতিটা কেমন? হ্যাঁ। সবুজপ্রেমীদের চক্ষু শীতলের এমন সৌখিন ব্যবস্থার নাম ঘাস কার্পেট। দিন দিন মানুষের সৌখিনতা বাড়ছে। একটা সময় মানুষের মৌলিক চাহিদার বাইরে ঘুরাঘুরি করতে দেখা গেছে। থেমে নেই মানুষের সৌখিনতা। শখ পূরণ করতে মানুষ কত কিছুই না করছে। থাকার জায়গাটা মানুষ চায় তার মনের মতো করে সাজিয়ে নিতে। তারই অংশ হিসেবে ঘাস কার্পেটের ব্যবহার করতে দেখা যাচ্ছে বাসা-বাড়িতে ও অফিস আদালতে। ঘরে ঘাসের অনুভূতি পেতেই হালে ঘাস ডিজাইন কার্পেট ও ঘাস কার্পেট ব্যবহার করা হয়।…

বিস্তারিত...