সুখী হতে চাইলে ‘বিষাক্ত’ বন্ধুদের চিনে বিতাড়িত করুণ

সুখী হতে চাইলে ‘বিষাক্ত’ বন্ধুদের চিনে বিতাড়িত করুণ

বন্ধু সবার জীবনেই থাকে। ভালো বন্ধুর যেমন জীবনে খুবই প্রয়োজন তেমনই জীবনে এমন কিছু বন্ধুও আসে যারা শুধুমাত্র সংকট তৈরি করে।

আপনি তাঁদের হয়তো সরাসরি না বলতে পারেন না, তবে তাদের জন্যই আপনাকে মানসিক সমস্যায় পোহাতে হয়। এমনকী প্রশ্নের মুখেও পড়তে হয়। যে যে লক্ষণে বুঝবেন আপনার বন্ধুত্ব মোটেও ভালো দিকে যাচ্ছে না।

এক, যে বন্ধুর কারণেই আপনি হীনম্মন্যতায় ভুগছেন। অনেকবার আশাহত হয়েছেন।

দুুই, যে বন্ধুর জন্য আপনার অনেক ফালতু সময় নষ্ট হচ্ছে।

তিন, মনে হচ্ছে জোর করে আপনার উপর কিছু চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

চার, বন্ধুত্ব একতরফা।

পাচ, ভ যে বন্ধুত্বের মধ্যে ভালোবাসার চেয়েও হিংসা বেশি ও উত্তম সাজার নাটক করে।

যেভাবে মোকাবিলা করবেন

বন্ধুকে ভালো করে জানুন- খুব ভালো করে বন্ধুকে বুঝতে হবে। সে হয়তো জীবনে আপনাকে পেয়ে সুখী। তবে আপনার ক্ষেত্রে তা নাও হতে পারে। সবসময় ভালো খারাপের তুলনা করে নিতে হবে

কিছুটা সময় দিন নিজেকে- বন্ধুত্বের বাইরেও নিজের জন্য কিছুটা সময় বাজেট করুন। নিজের জন্য ভাবুন। আর কিছু মানুষকে এড়িয়ে চলতে শিখতে হবে।

সিদ্ধান্ত নেওওয়ার যথেষ্ঠ বয়স হয়েছে। তাই নিজেই ঠিক করুন বন্ধুত্ব আদেও রাখবেন কি না এবং তা যথাসম্ভব তাড়াতাড়ি সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *