শীতে নিজেকে ফিট রাখবেন যেভাবে

শীতে নিজেকে ফিট রাখবেন যেভাবে

দরজায় কড়া নাড়ছে শীত। শুরু হয়ে গেছে শীতের মৌসুম আগমনী বার্তা। শীতে শুষ্কতা ও রুক্ষতা বিরাজ করে। এই সময়ে ত্বক রুক্ষ হয়ে যায়। শরীরে রোগ ব্যাধি বৃদ্ধি পেতে থাকে। এই শীত মৌসুমে ফিট ও সক্রিয় থাকতে দেখে নিন কয়েকটি মূল্যবান টিপস।

শীতকালে জলবায়ু রুক্ষ ও শুষ্ক হওয়ায় ত্বকে ফাটল ধরতে থাকে। ত্বককে সুস্থ রাখতে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করতে হবে। পানিই ডিহাইড্রেশন ও ত্বককে শুষ্কতা হতে সুরক্ষা করে।

পানীয় হিসেবে ভেষজ চা পান করুন। অনেক ভেষজ চা আছে যা সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। লেবু ও ক্যামোমিলের মতো ভেষজ চা স্নায়ুকে শান্ত রাখে এবং শরীরকে শিথিল করে। ফলে, হতাশা, উদ্বেগ কমে এবং ভালো ঘুমও হবে।

শীতকালে খাদ্য তালিকায় আবশ্যক হিসেবে মাশরুম রাখুন। মাশরুমে স্বাস্থ্যের উপকারী ভিটামিন বি, সি, ডি, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, মিনারেল ও আরগোথিওনিন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রোগ প্রতিরোধের সক্ষমতা বাড়ায়।

শীতে স্বাস্থ্যকর থাকার জন্য ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাদ্য ও লেবু জাতীয় ফল খেতে হবে। জিংক জাতীয় খাবারও গ্রহণ করতে হবে। এই খাবারগুলো রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

শীতে স্বাস্থ্যকর থাকার জন্য ডায়েটে প্রচুর ফলমূল, শাকসবজি রাখতে হবে। কেন না এগুলোতে থাকা পুষ্টি দেহকে সুস্থ্য রাখতে সহায়তা করে। শীতে নিজেকে ফিট রাখার জন্য প্রচুর পরিমাণে পানি ও মৌসুমী শাকসবজি এবং ফলমূল খেতে হবে।

শীতে সুস্থতা বজায় রাখতে অধিক হারে ফাইবার যুক্ত খাদ্য খেতে হবে। আপেল, ওটস ও বাদাম ফাইবার যুক্ত খাবার। এগুলো শরীরের ওজন ও কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সহায়ক হিসেবে কাজ করে। ডায়াবেটিসের বিরুদ্ধে লড়াই করে। বয়স্কদের জন্য এগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

শীতে নিজেকে ফিট রাখতে প্রতিদিন ব্যায়াম করতে হবে। অনুশীলন বা শরীরচর্চা দেহের উষ্ণতা বজায় রাখতে সহায়তা করে এবং শরীরে বিপাক ও রক্ত প্রবাহকে ভালো রাখে।

আরো দেখুন

Leave a Comment