মিয়া খলিফার তড়িঘড়ি বিয়ের ঘোষণায় নেটিজেনদের প্রশ্ন

মিয়া খলিফার তড়িঘড়ি বিয়ের ঘোষণায় নেটিজেনদের প্রশ্ন

পর্নস্টার হিসেবে মিয়া খলিফাকে চেনে গোটা দুনিয়া। বেশ কয়েক বছর আগে পর্ন ইন্ডাস্ট্রি ছেড়ে দিলেও এখনও পর্নস্টার হিসেবে তাকে চেনেন সবাই।

এবার এই পরিচিতি চূড়ান্ত ভাবে ত্যাগ করতে চান মিয়া খলিফা। এবার স্বামীর পরিচয়ে ও স্বামীর সংসারেই বাঁচার পরিকল্পনা করেছেন নীল দুনিয়ার এক সময়ের সাড়া জাগানো তারকা মিয়া খলিফা।

শিগগিরই বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন মিয়া এবং সেটা আগামী ছয় মাসের মধ্যেই সেরে ফেলার ঘোষণাও দিয়েছেন মিয়া খলিফা। তার এমন ঘোষণার পরপরই শুরু হয়েছে নানান ধরনের সমালোচনা।

দীর্ঘদিন ধরেই এ বিষয়ে গুঞ্জন ছিল। এখন শোনা যাচ্ছে মিয়াই বিয়ে করতে তাড়াহুড়ো করছেন। আর সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরের গোরার দিকেই বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন তিনি।

দীর্ঘদিনের বয়ফ্রেন্ড রবার্ট স্যান্ডবার্গকেই বিয়ে করতে যাচ্ছেন তিনি। এভাবে তাড়াহুড়া করে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা।

মিয়ার বিয়ে সম্পর্কে নেটিজেনদের প্রশ্ন, তাহলে কী সুখবর দিচ্ছেন মিয়া খালিফা? তবে নিজের অনুরাগীদের এমন প্রশ্নবানের জবাব দিতে বাধ্য হয়েছেন মিয়া খলিফা।

নিজেই সব সমালোচনা উড়িয়ে দিয়েছেন। জানিয়েছেন তিনি মোটেও প্রেগনেন্ট না। শুধুমাত্র হবু বরের ক্যারিয়ারের টাইমিং মোতাবেক পুরো পরিকল্পনা করা হচ্ছে। এখানো বিয়ে করার তাড়াহুড়োর পেছনে কোনো ঘটনা নেই।

নীলছবির দুনিয়াকে চূড়ান্তভাবে বিদায় জানানোর পর মিয়া খলিফা গত মার্চে বিশেষ বন্ধু রবার্ট স্যান্ডবার্গের সঙ্গে বাকদান পর্ব সেরে নেন তিনি।

ওই সময় মিয়া জানান, আপাতত বিয়ে করার কোনও তাড়াহুড়া নেই তাঁর। ২০২১ এর আগে বিয়ে করবো না। তবে আচমকা বিয়ের তারিখ এক বছরেরও বেশি এগিয়ে এনে ছয় মাসের মধ্যে সেরে ফেলার কথা ঘোষণা দিতেই শুরু হয় প্রেগনেন্সির সমালোচনা৷ যদিও এটা মিয়া খলিফা নিজেই প্রত্যাখ্যান করে দিয়েছেন।

মিয়া খলিফা একজন মুসলিম পর্ন স্টার। নীল দুনিয়া কাঁপানো একটি নাম। খলিফা আরবি শব্দ যার বাংলা অর্থ প্রতিনিধি। তবে এই নারী পোশাক নিয়ে রয়েছে কোটি কোটি সমালোচনা। মাথায় হিজাব পরা মেয়েটি আসলে কি কারোর প্রতিনিধি!

মিয়া খলিফা, ১০ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৩ লেবাননরে রাজধানী বৈরুতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি একজন মডেল। ২০১৪ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত পর্নোগ্রাফিতে অভিনয় করেছেন।

বৈরুতে জন্ম নেওয়া মিয়া খলিফা ২০০০ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্থানান্তরিত হন। অক্টোবর ২০১৪ সালে তিনি পর্নোগ্রাফিতে অভিনয় শুরু করেন এবং ডিসেম্বরের পর্নহাব পর্নস্টারদের তালিকা এক নম্বর স্থান পান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *