ফেসবুক হ্যাকিং কী আদৌ সম্ভব?

সারা বিশ্বে প্রায় ৩০০ মিলিয়ন মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করেন।

ফেসবুক ব্যবহারকারী অনেকের আইডি মাঝে মাঝেই হ্যাক হবার কথা শোনা যায়।

কিন্তু আসলেই কি কারো ফেইসবুক আইডি হ্যাক করা সম্ভব?

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ কিন্তু বলছেন, না। আপনি ঘন্টার পর ঘন্টা চেষ্টা করেও ফেসবুকের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ভেঙে কারো আইডি হ্যাক করতে পারবেননা।

পারলে আপনার জন্য রয়েছে পুরষ্কার। আর এমনটি ঘটেনি কখনো।

তবুও আমরা ফেসবুক আইডি হ্যাকিং এর গল্প শুনি কেন?

কারণ ফেসবুকের নিরাপত্তা ব্যবস্থা না ভেঙেও অসাধু কোনো ব্যক্তি আপনার দুর্বলতার সুযোগে মুহূর্তেই আপনার আইডি তার নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নিতে পারে।

অসাধু চক্র আপনার দুর্বলতাকে কাজে লাগাতে যে পদ্ধতি ব্যবহার করে এর মাঝে অন্যতম হল ফিশিং।

এ পদ্ধতিতে হ্যাকাররা বিভিন্নরকম লিংকের মাধ্যমে ফেসবুক হ্যাক করে থাকে।

ব্রাউজিং করবার সময় স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্ক্রিনে হঠাৎ হুবুহু ফেসবুকের অনুরূপ লগইন বাটন এসে যেতেই আপনি যাচাই ছাড়া পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করবার চেষ্টা করলেন। পাসওয়ার্ড তৎক্ষণাৎ চলে গেল হ্যাকার এর হাতে।

এছাড়া ফেসবুক আইডি দিয়ে প্রবেশ করতে হবে এমন কোনো অপরিচিত লিংকে আপনার আইডি লগইন করলে ফেসবুক আইডি হ্যাক হতে পারে ।

প্লে স্টোরে ফেইসবুক লিখলে অনেক ফেইসবুক অ্যাপস চলে আসে। এর বেশিরভাগ অ্যাপসই ফেক। এসব অ্যাপ্লিকেশনে লগইন করা মাত্র একাউন্ট হ্যাক হতে পারে।

সাইবার ক্যাফেতে বা অন্যের মোবাইল বা কম্পিউটারে অনেক সময় একাউন্ট লগ আউট করতে ভুলে গেলে অজান্তে অন্য কেউ একাউন্ট এ প্রবেশ করে আইডি হ্যাক করতে পারে।

ফেসবুকের ফলোয়ার বা লাইক অটোমেটিক বাড়ানোর জন্য কিছু অ্যাপস রয়েছে। এগুলো ব্যবহার করতে গিয়ে শুধু আইডি নয়, হ্যাকাররা আপনার পুরো কম্পিটার নিয়ন্ত্রনে নিয়ে নিতে পারে।

আপনার ভবিষ্যত কেমন হবে? আপনার বাড়ি অথবা গার্লফ্রেন্ড কেমন হবে? এই টাইপের অ্যাপস প্রায়ই ফেসবুকে ঘুরপাক খায়। মজা করার জন্য আমরা এগুলোর পোষ্টও ফেসবুকে দেই। কিন্তু এটা ব্যবহার করতে গিয়ে যদি কখনো আইডি দিয়ে লগইন করতে হয়, তাহলে বুঝবেন আপনি হ্যাকার ডেকে নিয়ে আসছেন।

আরো দেখুন

Leave a Comment