পাকিস্তানের ম্যাগাজিনে বাংলাদেশের প্রশংসা

পাকিস্তানের ম্যাগাজিনে বাংলাদেশের প্রশংসা

সীমানা মির্জা: এ বছর স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছে বাংলাদেশ।পাকিস্তানের করাচি থেকে প্রকাশিত একটি  ম্যাগাজিন বাংলাদেশের প্রশংসা করেছে।

সাউথ এশিয়া নামের ম্যাগাজিনটির মার্চ সংখ্যার নিবন্ধে বাংলাদেশের প্রশংসা করা হয়েছে। প্রচ্ছদে স্থান করে নিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গ্লোবাল টেক্সটাইল মার্কেট হিসাবে বাংলাদেশ পরিচিতি পেয়েছে বলে প্রশংসা করেছে পাকিস্তানের মাসিক ম্যাগাজিন সাউথ এশিয়া।

এ বছর স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছে বাংলাদেশ। ম্যাগাজিনটির মার্চ সংখ্যাটি সাজানো হয়েছে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর উপলক্ষে।

ইংরেজি ভাষায় লেখা ম্যাগাজিনটির সাতটি নিবন্ধেই বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সূচকগুলো পাঁচ দশকে যে অগ্রগতি অর্জনকে অভাবনীয় বলে আখ্যা দেয়া হয়েছে।

প্রবন্ধগুলোর ‘টেকিং স্টক’ শিরোনামে প্রথমটা লিখেছেন কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির অধ্যাপক ড. ফরিদা খান।

‘লাইফ বিগিনস অ্যাট ৫০’ শিরোনামে দ্বিতীয় প্রবন্ধটি লিখেছেন পাকিস্তানের লেখক, সাবেক সিনেটর ও ফেডারেল মন্ত্রী জাভেদ জব্বার।

‘প্লিজেন্ট সারপ্রাইজ’ শিরোনামে তৃতীয় প্রবন্ধটি লিখেছেন ডা. আহরার আহমদ। ‘ফাস্ট ট্র্যাক’ শিরোনামে চতুর্থ প্রবন্ধটি লিখেছেন মাজেদ আজিজ। ‘ম্যালাইস টুওয়ার্ডস নান?’ শিরোনামে পঞ্চম নিবন্ধটি লিখেছেন ডানকান বার্টলেট।

‘ডেভেলপমেন্ট মিরাকল’ শিরোনামে ষষ্ঠ প্রবন্ধটি লিখেছেন বিরুপাক্ষ পাল। ‘ইকোনমিক সলিউশন’ শিরোনামে সপ্তম নিবন্ধটি লিখেছেন আসিফ জাবেদ।

নিবন্ধগুলোতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের জিডিপি এখন ৩৩০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৩ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। রেমিট্যান্স ২০ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করেছে।

২০২০ সালে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ ছিল ২ দশমিক ৩৩৭ বিলিয়ন ডলার। রপ্তানি ও আমদানি ছিল যথাক্রমে ৩৩ বিলিয়ন ও ৪৯ বিলিয়ন ডলার।

চীনের পরে বাংলাদেশ বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পোশাক রপ্তানিকারক দেশ। পোশাক খাত থেকে দেশটির জিডিপির প্রায় ৪৫ শতাংশ ও মোট জিডিপির ৭ শতাংশ আসে।

পোশাক খাতে ৪০ লাখের বেশি মানুষ কাজ করছে যার ৮০ শতাংশ নারী। এটি বাংলাদেশের মোট রপ্তানিতে ৮৪ শতাংশ অবদান রাখে। বাংলাদেশের বৈশ্বিক প্রবণতা ও অর্থনীতির পরিবর্তনের পথকে উন্মুক্ত করে এ খাত।

উল্লেখ্য, ১৯৭৭ সাল থেকে প্রতিমাসে নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে ম্যাগাজিনটি। প্রথমে এটির নাম ছিল থার্ড ওয়ার্ল্ড। ১৯৯৭ নাম বদল করে রাখা হয় সাউথ এশিয়া।

পড়তে পারবেন এই লিংকে : http://www.southasia.com.pk/category/cover-story/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *