দুস্তুদের সহায়তা করেই যাচ্ছে সেভিয়র ফাউন্ডেশন

দুস্তুদের সহায়তা করেই যাচ্ছে সেভিয়র ফাউন্ডেশন

আলভীন সারিকা: চলমান মহামারির মধ্যে দুস্থ ও কর্মহীন হতদরিদ্র মানুষের মাঝে আবারো খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে সেভিয়র ফাউন্ডেশন।

শনিবার (৮ মে) রাজশাহী মহানগরের মিজানের মোড় এলাকায় ঈদ খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ বস্ত্র বিতরণ করেছে সংগঠনটির স্বেচ্ছাসেবীরা।

বিতরণ করা খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে চাল, মশুর ডাল, আলু, পেয়াজ, সয়াবিন তেল,কাঁচা মরিচ, লাচ্ছি সেমাই, গুড়ো দুধ, চিনি, পোলাও চাল দেয়া হয়েছে। এছাড়াও অস্বচ্ছল ও দুস্থ কয়েকটি পরিবারের মাঝে শাড়ী, লুঙ্গী, পাঞ্জাবী ও কাতওয়া বিতরণ করা হয়।

খাদ্য সামগ্রী পেয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন দুস্থ ও কর্মহীনরা। মহামারির কারণে তারা ঠিক মতো খাবার খেতে পারেন না বলেও জানান।

এ সময় সেভিয়র ফাউন্ডেশনের সভাপতি সরকার শাহীন মাহমুদ, প্রোগ্রাম পরিচালনা কমিটির স্মৃতি মন্ডল, প্রোগ্রাম পরিচালনা কমিটির সমন্বয়ক আতিক সুমন ছাড়াও খাদ্য সামগ্রী বিতরণের সময় স্থানীয় বাসিন্দা নূরুজ্জামান নূরসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে সেভিয়র ফাউন্ডেশনের সভাপতি বলেন, সম্প্রতি করোনা মহামারির প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় ও চলমান লকডাউনের কারণে দেশের অনেক মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে বিশেষ করে দিন মজুররা পরিবার নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন। এসব মানুষের দুঃখ-দুর্দশা কিছুটা হলেও লাঘব করার ক্ষুদ্র প্রয়াস নিয়েই এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ।

সেভিয়র ফাউন্ডেশনের সহসভাপতি শাহিদুজ্জামান শোভন ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ রবিউল্লাহ অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হোন।

ঢাকা থেকে তারা জানান, সেভিয়র ফাউন্ডেশন সর্বদা দুঃসময়ে মানুষের পাশে থাকতে অঙ্গীকারবদ্ধ। তাদের সাথে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে এটা আমাদের ক্ষুদ্র প্রয়াস। আমরা নিজ নিজ অবস্থান থেকে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলে তাদের জীবনযাত্রার একটা বিরাট পরিবর্তন সম্ভব। আজকের ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা অচিরেই বৃহৎ আকার ধারণ করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তারা।

উল্লেখ্য, সমাজ সেবার ব্রত নিয়ে হতদরিদ্র, সুবিধাবঞ্চিত ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমানের টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যে “জাগ্রত অভিযাত্রী” স্লোগানকে ধারণ করে স্বেচ্ছাসেবী ও সমাজসেবামূলক সংগঠন সেভিয়র ফাউন্ডেশন নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

সমাজ সেবামূলক এ সংগঠনটি রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় অসহায় ও হতদরিদ্রদের মাঝে সহায়তা করে যাচ্ছে। দেশের বিভিন্ন জেলার তরুণ সমাজ এই সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত থেকে স্বেচ্ছায় সেবা করে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *