থিনার কিভাবে কাজ করে এর দাম কত?

রঙের যাদুকরদের কাছে থিনার খুব পরিচিত। চিত্র শিল্পের জন্য যেমন রঙ অপরিহার্য আবার রঙের দাগ তুলতেও থিনার অপরিহার্য। শুধু রঙই নয়, ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতি পরিষ্কারের কাজেও থিনার ব্যবহার কার্যকরি।

মোটকথা থিনার এক প্রকার রাসায়নিক পদার্থ। এই রাসায়নিক পদার্থের মাধ্যমে বিভিন্ন বস্তু থেকে বিভিন্ন ধরনের দাগ তোলা হয়। জেনে নিন থিনারের আদ্যোপান্ত।

ব্যবহার:

  •  বার্ণিশের কাজে থিনার ব্যবহার হয়
  •  পেইন্টের কার্যকারিতা বৃদ্ধি করে।
  •  রং জাতীয় দাগ বা স্পট পরিষ্কার করতে থিনার ব্যবহার হয়
  •  ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতি পরিষ্কারের কাজে থিনার ব্যবহার হয়
  •  মৌবাইল সার্ভিসিংয়ের কাজে থিনার ব্যবহার হয়
  •  যানবাহন ও বৈদ্যুতিক সার্কিট পরিষ্কারের কাজে থিনার ব্যবহার করা হয়
  •  আঠা জাতীয় দাগ বা স্পট পরিষ্কার করতে থিনার ব্যবহার করা হয়

দর-দাম:

বাজারে বিভিন্ন ধরনের আমদানীকৃত থিনার বেচাকেনা হয়। এক লিটারের থিনারের দাম ১২০-১৮০ টাকা পর্যন্ত বাজারে বিক্রি হয়। সাধারণ দক্ষিণ আফ্রিকা ও সিঙ্গাপুর থেকে আমদানীকৃত থিনারের চাহিদা বেশি।

সাধারণ তিন ধরনের থিনার বেশি ব্যবহার হয় রঙ ও বাণির্শের কাজে। এ তিন ধরনের থিনার হলো এনসি পলিশ, লিকার পলিশ ও স্পিরিট পলিশ।

নিচে থিনারের দরদাম ও ব্র্যান্ড সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ণনা তুলে ধরা হলো-

এনসি পলিশ:

ক্রমিক–ব্র্যান্ড নাম–পরিমাণ———মূল্য

১      ___এএএ ___৪ লিটার___ ৭৫০-৮০০ টাকা

২      ___জিপি ___৪ লিটার ___৬৫০ -৭০০ টাকা

৩     ___জিসি ____৪ লিটার___ ৭২০-৭৬০ টাকা

৪  ___  এম______ ৪ লিটার___ ৬৮০-৭২০ টাকা

৫ _____এসএম___ ৪ লিটার___ ৬৫০-৭০০ টাকা

৬ ___সিঙ্গাপুর এনসি_ ১ লিটার__ ১২০-১৮০ টাকা

উল্লেখ্য যে, সিঙ্গাপুর এনসি ব্র্যান্ডের থিনার ২০০ লিটার ড্রামে আমদানী হয়। যা পরবর্তীতে লিটার হিসেবে বিক্রি হয়। যার মূল্য তালিকা উপরের ছকে দেওয়া আছে।

 

লিকার পলিশ:

ক্রমিক__ধরণ__পরিমাণ__মূল্য________মন্তব্য

১ __৪৪৬__১ লিটার__১৮০-২০০ টাকা__মোটামুটি

২ __৪৪৬ __১ লিটার __২২০-২৫০ টাকা __স্বাভাবিক

৩ __৪৪৬ __১ লিটার__২৬০-৩০০ টাকা __উন্নত মানের

৪ __৪৪১ __১ লিটার __৩৫০-৪০০ টাকা__ উন্নত মানের

স্পিরিট পলিশ:

ক্রমিক_ব্র্যান্ড নাম__পরিমাণ__মূল্য___মন্তব্য

১ ____মার্শাল ___৪ লিটার__৪৫০-৫০০ টাকা

২ ____যমুনা ____৪ লিটার__৫২০-৫৫০ টাকা

৩ ___যমুনা __৪ লিটার _৫৬০-৬০০ টাকা_ উন্নত মানের

সাবধানতা:

  •  সঠিক রঙের জন্য সঠিক থিনার ব্যবহার করতে হবে
  • রঙের সাথে প্রয়োজনীয় ও যথাযথ থিনার ছাড়া অন্য কোন কিছু মেশানো যাবে না। যেমন- চকপাওডার, চুন ইত্যাদি মেশানো যাবে না
  •  কাজের পর ব্রাশ বা রোলার অবশ্যই থিনার দিয়ে বা পানি দিয়ে ভালভাবে ধুয়ে রাখতে হবে।
  •  রঙের সাথে থিনার মিশানোর সময় ধুমপান করা যাবে না। কেন না রঙ একটি দাহ্য পদার্থ
  • রঙ ও থিনার এর আনুসাঙ্গিক মালামাল আগুন থেকে দূরে রাখতে হবে
  • শিশুদের নাগালের বাইরে রাখতে হবে রঙ, থিনার ও অন্যান্য পদার্থ

লেখক: রেদোয়ান আহমেদ রাফি

আরো দেখুন

Leave a Comment