করোনার দুর্দিনে বলিউড তারকারা কে কি অনুদান দিলেন?

চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে শুরু হয়ে বিশ্বজুড়ে দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস। করোনার বিস্তার ঠেকাতে বলতে গেলে গোটা বিশ্ব লকডাউন করে রাখা হয়েছে। করোনা মোকাবিলায় ত্রস্ত হয়ে উঠেছে বিশ্ববাসী। বিশেষ করে স্বল্প উন্নত দেশগুলোর মানুষেরা।

তারকা থেকে সাধারণ মানুষ যার যে সামর্থ আছে তাই আর্থিক অনুদান দিচ্ছেন দুস্ত ও কর্মহীনদেরকে। এ ”অনুদানে পিছিয়ে নেই বলিউড তারকারা”ও। তারকারা যা করে তাই জায়গা করে নেয় খবরের পাতায়। তাদের খাবার, পোশাক, লাইফস্টাইল সবকিছু নিয়ে ভক্তদের মধ্যে জানার আগ্রহ থাকে।

চলুন দেখে নেওয়া যাক করোনায় তাদের অনুদানের বিষয়াদী-

এগিয়ে রয়েছেন শাহ্রুখ খান:

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে মোটা অঙ্কের টাকা দিয়েছেন। এছাড়াও শাহরুখের ‘মীর ফাউন্ডেশন’ পক্ষ থেকে ৫০ হাজার পিপিই কিট দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ আর মহারাষ্ট্রের হাসপাতালগুলোতে। ভেন্টিলেটরের অভাব হলে তার জন্যও অর্থ সাহায্যের কথা জানিয়েছেন তিনি।

এক নজরে করোনায় শাহরুখ খান এর অনুদান:
  • শাহরুখ খান আর তাঁর ক্রিকেট টিম প্রধানমন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী আর পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দিয়েছেন একটা বড় অঙ্ক।
  • ৫০ হাজার পিপিই দিয়েছেন।
  • করোনার কারণে জীবিকা হারানো সাড়ে পাঁচ হাজার পরিবারকে প্রতিদিন তিন বেলা খাবার দিচ্ছেন। এক মাস এ কর্মসূচি চলবে।
  • হাসপাতাল আর জরুরি সেবায় নিয়োজিতদের প্রতিদিন দুই হাজার খাবার যাচ্ছে এক রান্নাঘর থেকে। আর সেই রান্নাঘরের খরচ দিচ্ছেন কিং খান।
  • এ ছাড়া মুম্বাই পুলিশের সঙ্গে মিলে শাহরুখের সংস্থা ভবঘুরে ও ভিক্ষুকদের জন্য প্রতিদিন ৩ লাখ খাবারের প্যাকেট তৈরি করছে।
  • দিল্লির আড়াই হাজার শ্রমিককে প্রতি সপ্তাহে বিনা পয়সায় রেশন দিচ্ছি শাহরুখের সংস্থা।

এই তালিকা কেবল যেসব সাহায্যের কথা মিডিয়াতে এসেছে, সেগুলো। এ রকম অসংখ্য উদারহণ আছে, যেগুলো কেউ জানেই না।

পিছিয়ে নেই অক্ষয় কুমারও:

শুধু করোনা নয় এর আগেও বহু কোটি টাকা দান করেছেন বলিউডের এই সুপার স্টার। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আহ্বানে সাড়া দিয়ে করোনা ত্রাণ তহবিলে কোটি টাকা অনুদান দিয়েছেন অক্ষয় কুমার। এই বিপুল অঙ্কের টাকা তহবিলে দান করার জন্য অক্ষয়কে ট্যুইট করে ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি।

এক নজরে করোনায় অক্ষয় কুমার এর অনুদান:
  • প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দান করেছেন ২৫ কোটি টাকা।
  • সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন মুম্বাইয়ের থিয়েটারের জন্য।
  • গত একমাস ধরে কোনও ছবি মুক্তি পায়নি ফলে প্রবল ক্ষতির মুখে পড়া কর্মীদের এক মাসের বেতন দেওয়ার জন্য যে অর্থ দরকার তা দেবেন।
  • অক্ষয় কুমারের এই সাহায্যের উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন থিয়েটার মালিকরা ও খুশি থিয়েটার কর্মীরা।
  • অভিনেতা-অভিনেত্রীদের মধ্যে এ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ত্রাণ তহবিলে অর্থ দান করেছেন সুপারস্টার অক্ষয় কুমার।

শুধু করোনা-যুদ্ধেই নয়, অনেকেই হয়তো জানেন না, দেশের বিপর্যয়ে বারবারই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন অক্ষয় কুমার। এর আগেও বিভিন্ন সময়ে বহু কোটি দান করেছেন তিনি।

অমিতাভ বচ্চন দাড়িয়েছেন দিনমজুরদের পাশে:

করোনার এ দুর্দিনে সালমান, শাহরুখের মতো দিনমজুরদের পাশে দাড়িয়েছেন বলিউড মেগাস্টার’ অমিতাভ বচ্চন। ভারতের লাখো দিনমজুরের ঘরে মাসিক রেশন দান করবেন তিনি। বলিউড ‘শাহেনশাহ’ এর মহৎ এই উদ্দ্যোগেকে স্বাগত জানিয়েছেন নেজিজেনরা। ধন্যবাদ জানিয়েছেন সনি পিকচার্স নেটওয়ার্কস ও কল্যাণ জুয়েলার্স।

এক নজরে করোনায় অমিতাভ বচ্চন এর অনুদান:
  • সনি পিকচার্স নেটওয়ার্কস যে অনাকাঙ্ক্ষিত অবস্থার মধ্যে পরেছি সে অবস্থায় বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছেন অমিতাভ বচ্চন।
  • ‘উই আর ওয়ান’ প্রোগ্রামের মাধ্যমে সারা ভারতের ১ লক্ষ ঘরে মাসিক রেশন বিতরণ করা হবে।
  • অল ইন্ডিয়া ফিল্ম এমপ্লয়িজ কনফেডারেশন থেকে সারাদেশের সকল কর্মীর নামের তালিকা নেওয়া হয়েছে।
  • এছাড়া যাদের জরুরি প্রয়োজন তাদেরও আর্থিক সহায়তা করবেন বিগ বি।
  • বিনা উপার্জনে থাকা ১ লক্ষ মানুষকে তিনি আগামী একমাস বিনামূল্যে রেশন দেবেন।
  • ‘মাদার অ্যাসোসিয়েশন’ নামে ফিল্ম জগতের প্রায় ১ লক্ষ দৈনিক মজুরের পরিবারগুলির মাসের রেশনের দায়িত্ব নিলেন তিনি। ফলে হাসি ফুটলো নিরন্ন মানুষজনের মুখে।

করোনার কারণে সরকারি তহবিলে একের পর এক যখন তারকাদের অনুদান দেয়ার ঘোষণা আসছিলো, তখন সেখানে পাওয়া যায়নি বিগ বি অমিতাভ বচ্চনের নাম। প্রশ্ন উঠেছিলো, এই করুণ সময়ে চুপ কেন অমিতাভ? কিন্তু শেষ পর্যন্ত চমকই দিলেন এই শাহেনশাহ।

দানের হাত ভালো সালমান খানের:

বলিউড তাকাদের মধ্যে আগে থেকেই দানের হাত ভালো বলিউড ভা্ইজান খ্যাত সালমান খানের। সিনেমা কর্মীদের জন্য অসাধারণ একটি পরিকল্পনা করেছেন ভাইজান।

এক নজরে করোনায় সালমান খান এর অনুদান:
  • শাহরুখ খান ও অক্ষয়ের মতো প্রধানমন্ত্রীর কেয়ার ফান্ডে তহবিল দেননি সালমান।
  • তবে দৈনিক আয়ের ভিত্তিতে যেসব কর্মী কাজ করেন তাদের আর্থিক অনুদান দেবেন।
  • লকডাইন চলাকালে সিনেমার সঙ্গে জড়িতদের সকল ধরনের সহযোগিতা করবেন।
  • তার এমন ঘোষণায় খুশি হয়েছেন খেটে খাওয়া দিন মজুররা।

কখনও আত্মপ্রচারে বিশ্বাসী নন আমির খান:

বরাবরই নিজের নিয়মে চলেন মিস্টার পারফেক্টসনিস্ট আমির খান। সিনেমার প্রচারণা বাদ দিলে তিনি কখনও আত্মপ্রচারে বিশ্বাসী নন। তাই নিঃশব্দে, ঢাক-ঢোল না পিটিয়েই করোনা মোকাবিলায় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন গজনি তারকা আমির খান।

এক নজরে করোনায় আমির খান এর অনুদান:
  • ইতিমধ্যেই করোনা মোকাবিলায় বিভিন্ন খাতে অর্থ অনুদান করেছেন বলিউডের এ তারকা অভিনেতা।
  • প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের পাশাপাশি মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর তহবিল, ওয়ার্কাস অ্যাসোসিয়েশন দিয়েছেন তহবিল।
  • এছাড়া অনেক এনজিও-তেও আর্থিক অনুদান করেছেন তবে তার পরিমাণ জানাননি বলিউডের মিস্টার পারফেক্টসনিস্ট।
  • মুম্বাই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির দিন চুক্তিতে শ্রমিকদের সাহায্যের জন্যও হাত বাড়িয়েছেন আমির।

যদিও এই অর্থ সাহায্যের কথা অভিনেতা নিজে জানাননি। করোনা মোকাবিলায় ত্রাণে সাহায্যের হাত বাড়ানোয় এ অভিনেতার প্রশংসা করছেন সবাই।

রোহিত শেঠি ও অজয় দেবগণ:

করোনার ছোবলে বন্ধ বলিউডের শুটিং। আর এ কারণে আর্থিক ভাবে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন সিনেমার টেকনিশিয়ান ও শ্রমিকরা। বিষয়টি ভাবিয়ে তুলেছে বলিউড তারকা ও নির্মাতাদের।

‘গোলমাল’ সিনেমার নির্মাতা রোহিত শেঠি বিপদে পড়া এই দৈনিক মজুরির সিনেমা শ্রমিকদের জন্য ফেডারেশন অব ওয়েস্টার্ন ইন্ডিয়া সিনে এমপ্লয়ির তহবিলে ৫১ লাখ রুপি অনুদান দিয়েছেন।

রোহিত শেঠির পথ ধরে অজয় দেবগণও দিন মজুরির সিনে শ্রমিকদের জন্য এফডাব্লিউআইসিই এর তহবিলে ৫১ লাখ রুপি দান করেছেন।

হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন বরুন ধাওয়ান:

অক্ষয়-শাহরুখদের এগিয়ে আসা দেখে অনেক তারকা সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। বলিউডের হালের জনপ্রিয় অভিনেতা বরুন ধাওয়ানও নিজেকে করোনা-যুদ্ধে সামিল করেছেন। দিয়েছেন ৩০ লাখ টাকা। প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে তিনি এ তহবিল জমা দেন।

দুসময়ে অনুদান দিয়েছেন আয়ুস্মান খুরানা:

করোনার দুসময়ে অনুদান দিয়েছেন বলিউডে সময়ের সুপার স্টার আয়ুষ্মান খুরানাও। তবে এ তারকা ঠিক কত টাকা অনুদান দিয়েছেন সে বিষয়ে খোলসা করে জনসমক্ষে বলতে চাননি তিনি। তবে যাই হোক সে যে পরিমাণ অর্থই দান করুক না তাতেই খুশি তার ভক্তরা।

যুক্ত হয়েছেন ক্যাটরিনা-কার্তিকরা:

ভারতে `পিএম-কেয়ারস’ নামে খোলা সরকারি তহবিলে অনুদান দিয়েছেন অনেক বলিউড তারকাসহ, ভারতের অনেক শিল্পপতি ও বিত্তবানদের সঙ্গে তালিকায় ইতোমধ্যেই যুক্ত হয়েছেন আনুশকা শর্মা, কার্তিক আরিয়ান, দিলজিৎ দোসাঞ্জ, ক্যাটরিনা কাইফ, ভিকি কৌশল, নানা পাটেকরসহ বহু নাম।

বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা ও ক্রিকেটার বিরাট কোহলি দম্পতি দান করেছেন ৩ কোটি টাকা। হালের সেনসশন কার্তিক আরিয়ান দিয়েছেন ১ কোটি টাকা।

অন্যদিকে ভিকি কৌশল ও নানা পাটেকর সরকারি তহবিলে পৃথকভাবে অনুদান করেছেন ১ কোটি টাকা করে। কিংবদন্তি শিল্পী লতা মুঙ্গেশকর সরকারি তহবিলে দিয়েছেন ২৫ লাখ টাকা।

এছাড়াও ছোট বড় বিভিন্ন অঙ্কের অনুদান দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, ক্যাটরিনা কাইফ, আলিয়া ভাট, শিল্পা শেঠি, সারা আলি খানসহ অনেক তারকারাই। এদের ভেতর অধিকাংশরা অনুদানের অর্থের অংকের পরিমান উল্লেখ করেননি।

এগিয়ে এসেছেন দক্ষিণ ভারতের সুপারস্টাররাও:

এগিয়ে এসেছেন রজনীকান্ত থালাইভা:

অর্থ সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছেন দক্ষিণ ভারতের সুপারস্টার রজনীকান্ত থালাইভা। তিনি ত্রাণ তহবিলে ৫০ লাখ টাকা জমা দিয়েছেন।

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আল্লু অর্জুন:

দক্ষিণ ভারতের অভিনেতা আল্লু অর্জুন ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা তেলেঙ্গনা, অন্ধ্রপ্রদেশ ও কেরালার সরকারকে দিয়েছেন। একই সঙ্গে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সবাইকে গৃহবন্দি ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার অনুরোধ করেছেন আল্লু অর্জুন।

লড়াইয়ের দলে বাহুবলী প্রভাসও:

প্রাণঘাতি করোনাযুদ্ধে লড়াইয়ের দলে নাম লিখিয়েছেন ‘বাহুবলী’ খ্যাত প্রভাসও। কোভিড ১৯ ত্রাণ তহবিলে ৪ কোটি টাকা অর্থ সাহায্য করেছেন দক্ষিণী সুপার স্টার প্রভাসও। তার এমন বিপুল দানে উপকৃত হচ্ছেন হত দরিদ্ররা।

করোনার কঠিন সময়ে এগিয়ে এসেছেন ভূষণ কুমার:

টি সিরিজের কর্তা ভূষণ কুমার ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে ১১ কোটি টাকা জমার ঘোষণা দিয়েছেন। করোনার কঠিন সময়ে সাহায্যের জন্য প্রত্যেকেরই এগিয়ে আসার মতো তিনিও এসেছেন।

এ পর্যন্ত যাদের কথা বলা হয়েছে তারা প্রত্যেকেই জনপ্রিয় মুখ। এছাড়াও গায়ক গুরু রনধাওয়া ২০ লাখ টাকা দান করেছেন। টেলিভিশস তারকা অর্জুন বিজলানি প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে ৫ লাখ টাকা ও মহারাষ্ট্র মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ৫ লাখ টাকার অনুদান দিয়েছেন।

আরো দেখুন

Leave a Comment